উন্নয়ন মেলা ২০১৭

লক্ষ্য ও ঊদ্দেশ্যঃ
  • জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কার্যক্রম সর্বস্তরের জনগণের মাঝে তুলে ধরা;
  • সর্বস্তরের জনগণকে সরকারের উন্নয়ন কাজের সাথে সম্পৃক্ত করা; 
  • সরকারের ভবিষ্যৎ কর্পমরিকল্পনা, এমডিজি অর্জনে সরকারের সাফল্য প্রচার ও এসডিজি কার্যক্রম বাস্তবায়নে জনগণকে উদ্ভুদ্ধ করা, 
  • স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবর্গ ও সরকারি কর্মকর্তাগনের যৌথ অংশগ্রহণে স্থানীয় সমস্যা স্বম্পর্কে মতবিনিময় ও বাস্তবায়ন পরিকল্পনা তৈরি;

 

জেলার বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন অগ্রযাত্রা(২০০৮ থেকে ২০১৬):   

 

উল্লেখযোগ্য অর্জনঃ

কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্পঃ

ক) ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল ভবনের ফ্রেম ষ্ট্রাকচারে নির্মিত হচ্ছে। খ) একাডেমিক ভবন, গ) ছাত্র হোষ্টেল ভবন, ঘ) ছাত্রী হোষ্টেল ভবন, ঙ) পুরুষ ডাক্তার ডরমিটরী,  চ) মহিলা ডাক্তার ডরমিটরী, ছ) ষ্টাফ নার্স ডরমিটরী, জ) আবাসিক ভবন (হাপাতাল) (১৮০০ ও ১৫০০ বর্গফুট), ঝ) আবাসিক ভবন (প্রিন্সিপাল, ভাইস প্রিন্সিপাল, পরিচালক ও উপ-পরিচালক) (১৮০০ ও ১৫০০ বর্গফুট) ও ঞ) আবাসিক ভবন (হাপাতাল) (১০০০ ও ১০০০ বর্গফুট) ফ্রেম ষ্ট্রাকচার নির্মিত হয়েছে, ফিনিশিং কাজ চলছে। ব্যয়িত অর্থের পরিমাণ ১৭৮.১২ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ (ভেড়ামারা) - ভারত (বহরামপুর) গ্রীড আন্ত:সংযোগ প্রকল্পঃ

(১) একটি ৫০০ মেঃওঃ এইচভিডিসি ব্যাক টু ব্যাক স্টেশন স্থাপন করা হয়েছে (২) ৪০০ কেভি ভেড়ামারা-বহরামপুর সঞ্চালন লাইন (ডাবলসার্কিট) ২৭.০০ কিঃমিঃ (বাংলাদেশ অংশ) নির্মাণ করা হয়েছে ও (৩) ২৩০ কেভি ঈশ্বরদী-খুলনা সঞ্চালন লাইন (ডাবলসার্কিট) ভেড়ামারা ইন ও আউট ৪.৫১৩ কিঃমিঃ নির্মাণ করা হয়েছে। এ প্রকল্পে মোট ব্যয় করা হয়েছে ১৫৭৯.২৯ কোটি টাকা।

র্কুষ্টিয়া শহর বাইপাস সড়ক নির্মাণ প্রকল্পঃ

 প্রকল্প বাস্তবায়নকাল : ১ জানুয়ারী, ২০১১ হতে ৩০ জুন, ২০১৭ পর্যন্ত।প্রকল্পের সংশোধিত ডিপিপি গত ০৬/০১/২০১৫ তারিখে একনেক সভায় অনুমোদিত হয়। পরবর্তীতে বাইপাস সড়ক নির্মাণ কাজের দরপত্র আহবান করা হয়েছে। কার্য্য সম্পাদনের লক্ষে ৭১২৬.২৯ লক্ষ টাকায় মনিকো লিঃ এর সাথে চুক্তি সম্পাদন করে গত ২৮/০১/২০১৬ তারিখে কার্যাদেশ প্রদান করা করা হয়েছে। কার্যাদেশ অনুযায়ী কাজ সমাপ্তির তারিখ : ২৭/০১/২০১৮।প্রকল্পের ২১টি কালভার্ট এর মধ্যে ১৭ কালভার্ট নির্মাণ কাজ সম্পন্ন। ৫.০০ লক্ষ ঘনমিটার মাটির কাজের মধ্যে ৩.৬১ লক্ষ ঘনমিটার সড়ক বাধেঁ মাটির কাজ সম্পন্ন। ১টি সেতু নির্মাণ কাজ সম্পন্ন। রেলওয়ে ওভারপাস এর সাব-স্ট্রাকচার সমাপ্ত হয়েছে। সুপার ষ্ট্রাকচার এর কাজ চলমান। বর্তমানে পেভমেন্টের কাজ চলমান রয়েছে। প্রকল্পের বাস্তব অগ্রগতি ৪১.২৮%। প্রকল্পের আর্থিক অগ্রগতি ৩২.৭৩%।

ভিক্ষুক পুনর্বাসন কর্মসূচিঃ

খুলনা বিভাগে ভিক্ষুক মুক্তকরণ, ভিক্ষুকদের কর্মসংস্থান ও পুনর্বাসন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। ডাটাবেজ অনুযায়ী কুষ্টিয়া জেলায় ভিক্ষুকের সংখ্যা ২২৭৩ জন। এ পর্যন্ত মোট ১৫০২ জন ভিক্ষুককে পুনর্বাসন করা হয়েছে। অবশিষ্ট ভিক্ষুকদের পুনর্বাসন কার্যক্রম চলমান আছে। জেলাকে ভিক্ষুক মুক্তকরণ ও পুনর্বাসনের লক্ষ্যে গঠিত ফান্ডে ৭,৭৫,৫৭৮/- টাকা জমা আছে।

ডিজিটাল সার্ভিস এওয়ার্ড, ২০১৫ঃ

 তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য শ্রেষ্ঠ ডিজিটাল জেলা হিসেবে কুষ্টিয়া জেলাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল সার্ভিস এওয়ার্ড, ২০১৫ প্রদান করেন।

কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতু(গড়াই সেতু):

কুষ্টিয়া-হরিপুর সংযোগ সেতু প্রকল্পের বাজেট ৭১ কোটি টাকা। এই সেতুটি ৫০৪.৫৫ মিটার লম্বা। ৬ দশমিক ১মিটার প্রস্থ। এর মধ্যে উভয় সাইডে ৩ ফুট করে ৬ ফুট ফুটপাত রাসত্মা হবে। এ সেতুর কুষ্টিয়া শহরের দিকে ২০০ মিটার এবং হরিপুর সাইডে ১৯৬ মিটার এপ্রোচ সড়ক হবে। সেতুতে ১২টি স্প্যান হবে যার প্রতিটি স্প্যান ৪২.০৫মিটার। প্রতি স্প্যান ৪টি গার্ডারের উপর বসবে। ইতিমধ্যে উভয় সাইডে স্প্যান ও গার্ডার নির্মান শুরু হয়েছে।সেতুটি এই বছর উদ্বোধন করা হবে।

 

উন্নয়ন মেলার কর্মসূচীঃ

সময়

কর্মসূচি

স্থান

১ম দিন : ০৯ জানুয়ারি ২০১৭, সোমবার

সকাল ১০:০০ ঘটিকা

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

কালেক্টরেট চত্বর

সকাল ১১:০০ ঘটিকা

গ্রামীণ খেলাধুলা

কালেক্টরেট স্কুল ও শহীদ মিনার চত্বর

বিকাল ৩:০০ ঘটিকা হতে ৫:০০ ঘটিকা

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক

‘উন্নয়ন মেলা-২০১৭’ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠান বিটিভির মাধ্যমে গণভবন হতে  সরাসরি সম্প্রচার বড়পর্দায়  প্রদর্শন

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

সন্ধ্যা ৬:০০ ঘটিকা হতে রাত ৭:০০ ঘটিকা

“বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ও আগামী দিনের বাংলাদেশ”

শীর্ষক আলোচনা সভা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

রাত ৭:০০ ঘটিকা

বাংলাদেশ শিশু একাডেমী, কুষ্টিয়া জেলা শাখার পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

২য় দিন : ১০ জানুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার

বিকাল ৩:০০ ঘটিকা হতে ৪:০০ ঘটিকা

উন্মুক্ত কুইজ প্রতিযোগিতা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

বিকাল ৪:১৫ ঘটিকা হতে ৫:১৫ ঘটিকা

“মুক্তিযুদ্ধ ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন” এবং

“দারিদ্র বিমোচনে বর্তমান সরকারের সাফল্য”

শীর্ষক আলোচনা সভা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

সন্ধ্যা ৫:৪৫ ঘটিকা হতে ৬:৪৫  ঘটিকা

“এসডিজি বাস্তবায়নে সমস্যা ও সম্ভাবনা-

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনা”

শীর্ষক আলোচনা সভা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

রাত ৭:০০ ঘটিকা

লালন একাডেমি, কুষ্টিয়ার পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

৩য় দিন : ১১ জানুয়ারি ২০১৭, বুধবার

বিকাল ৩:০০ ঘটিকা হতে ৪:০০ ঘটিকা

উন্মুক্ত কুইজ প্রতিযোগিতা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

বিকাল ৪:১৫ ঘটিকা হতে ৫:১৫ ঘটিকা

“ডিজিটাল বাংলাদেশ ও নাগরিক সেবায় উদ্ভাবন”

এবং “ডিজিটাল বাংলাদেশ ও প্রাসঙ্গিক ভাবনা:

আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ ও আমাদের প্রস্তুতি”

শীর্ষক আলোচনা সভা

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

সন্ধ্যা ৫:৪৫ ঘটিকা হতে ৬:৪৫  ঘটিকা

“রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১: আমাদের করণীয়”

ও সমাপনী অনুষ্ঠান

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

রাত ৭:০০ ঘটিকা

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী, কুষ্টিয়া জেলা শাখার পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

কালেক্টরেট শহীদ মিনার চত্বর

বি:দ্র: ০৯ জানুয়ারি বিকাল ৫:০০ ঘটিকা হতে রাত ৯:০০ ঘটিকা এবং ১০ ও ১১ জানুয়ারি প্রতিদিন সকাল ১০:০০ ঘটিকা হতে রাত ৯:০০ ঘটিকা পর্যন্ত মেলা চলবে।

“উন্নয়ন মেলা” ২০১৭ এ অংশগ্রহণকারী স্টলসমূহের তালিকা

“উন্নয়ন মেলা” ২০১৭ এ অংশগ্রহণকারী স্টলসমূহের তালিকা দেখতে এখানে ক্লিক করুন

“উন্নয়ন মেলা” ২০১৭ এ অংশগ্রহণকারী স্টলসমূহের লোকেশন দেখতে এখানে ক্লিক করুন